FaucetPay কি? বিটকয়েন ইনকাম করার সেরা সাইট?

বর্তমানে আমরা সবাই ক্রিপ্টোকারেন্সি বা বিটকয়েন সম্পর্কে অবগত আছি। আবার অনেকেই হয়তো জানি যে কিভাবে ক্রিপ্টোকারেন্সি বা বিটকয়েন ইনকাম করতে হয়। আজকে আমি ক্রিপ্টোকারেন্সি রিলেটেড ওয়েবসাইট FaucetPay সম্পর্কে আলোচনা করব যেখান থেকে আপনি ক্রিপ্টোকারেন্সি ইনকাম করতে পারবেন একই সাথে অন্যান্য বিভিন্ন ওয়েবসাইটে কাজ করেও সেই সাইট গুলো থেকে পেমেন্ট নিতে এই সাইটটি ব্যবহার করতে পারবেন এবং পরবর্তীতে আপনার ইনকাম করা ক্রিপ্টোকারেন্সি আপনি আপনার ওয়ালেট এ নিয়ে আসতে পারবেন। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।


FaucetPay কি?


{tocify} $title={Table of Contents}


FaucetPay কি?

আজকে আমরা আলোচনা করব FaucetPay নিয়ে। FaucetPay হচ্ছে এমন একটি ওয়েবসাইট যেটি কিনা মাল্টিপল ক্রিপ্টোকারেন্সি ওয়ালেট প্রোভাইড করে থাকে। এখানে আপনারা বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে যারা কিনা ক্রিপ্টোকারেন্সিতে পেমেন্ট করে থাকে, সেসব ওয়েবসাইট থেকে কোন এক্সট্রা ফি ছাড়াই পেমেন্ট রিসিভ করতে পারবেন। প্রায় সকল জনপ্রিয় পিটিসি সাইটই FaucetPay সাপোর্ট করে। অর্থাৎ সে সকল ওয়েবসাইট থেকে আপনি খুব সহজেই আপনার FaucetPay একাউন্টে পেমেন্ট নিতে পারবেন।


FaucetPay রিয়েল নাকি ফেক?

পিটিসি সাইট গুলো সম্পর্কে অনেকেরই এমন ধারণা থাকে যে এগুলো ফেক অথবা কাজ করে পেমেন্ট দিবেন। যদিও FaucetPay কোন পিটিসি সাইট নয়। তবুও FaucetPay সম্পর্কে অনেকের এমন ধারণা থাকতে পারে যে FaucetPay রিয়েল নাকি ফেক। আমি আপনার বলতে পারি যে FaucetPay ১০০%  রিয়েল একটি সাইট। আমি দীর্ঘদিন ধরে FaucetPay  ব্যবহার করে আসছি। আর আপনারা চাইলে ইন্টারনেট থেকে এর রিভিউ গুলো দেখে নিতে পারেন।


Faucet কি?

Faucet হচ্ছে এমন একটি সিস্টেম যেখানে আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভিজিট করে এবং বিভিন্ন ছোট ছোট টাস্ক সম্পন্ন করার মাধ্যমে ক্রিপ্টোকারেন্সি ইনকাম করতে পারবেন। এসকল টাস্ক গুলো আপনি নির্দিষ্ট সময় পরপর সম্পন্ন করতে পারবেন। Faucet সাইট গুলো অধিকাংশ সময়ই ইন্সট্যান্টলি পেমেন্ট করে থাকে।


FaucetPay তে একাউন্ট খোলার নিয়ম?

FaucetPay তে একাউন্ট খোলা খুবই সহজ। অন্য সকল ওয়েবসাইঢে অ্যাকাউন্ট খোলার মতই আপনি FaucetPay তে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। শুধু একটি ইমেইল এড্রেস থাকলেই চলবে। FaucetPay তে মোবাইল নাম্বার বা এনআইডি কার্ড ভেরিফিকেশনের কোন ঝামেলা নেই।

FaucetPay তে একাউন্ট খোলার জন্য প্রথমে এই লিংকে ক্লিক করুন। তারপর একটি Sign Up বাটন দেখতে পাবেন। সেখানে ক্লিক করলে একটি রেজিস্ট্রেশন ফরম দেখতে পাবেন। ফরমটিতে প্রয়োজনীয় সব তথ্য ইনপুট দিয়ে সাইন আপ বাটনে ক্লিক করলে আপনার দেওয়া ইমেইলে একটি ভেরিফিকেশন কোড যাবে। সেই কোডটি FaucetPay এর ওয়েবসাইটে ইনপুট দিয়ে সাবমিট করলেই আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে।


FaucetPay থেকে ইনকাম করার উপায় গুলো কি কি?

FaucetPay থেকে আপনি বিভিন্ন উপায়ে ইনকাম করতে পারবেন। তার মধ্যে রয়েছে FaucetPay এর নিজস্ব কিছু আর্নিং সিস্টেম এবং কিছু থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট যেগুলোতে কাজ করে ক্রিপ্টোকারেন্সি ইনকাম করে সেই ক্রিপ্টোকারেন্সি আপনি আপনার FaucetPay একাউন্টে কোন ফি ছাড়াই রিসিভ করতে পারবেন।

  • FaucetPay এর নিজস্ব আর্নিং সিস্টেমঃ এইচডি নিজস্ব আর্নিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে পিটিসি, অফারওয়াল, সার্ভে, ট্রেডিং, গেম খেলা ইত্যাদি।
    • পিটিসি (PTC - Paid to Click): আপনারা অনেকেই হয়তো পিটিসি সম্পর্কে জানেন। FaucetPay পিটিসি একই কাজ করে। অর্থাৎ প্রতিদিন আপনাকে কিছু ওয়েবসাইট ভিজিট করতে দেওয়া হবে এবং সেগুলো ভিজিট করার জন্য আপনাকে কিছু পরিমাণ সাতোশি রেওয়ার্ড দেওয়া হবে সেগুলো সরাসরি আপনার একাউন্টে এড হয়ে যাবে।
    • Offerwall: অফারওয়ালে আপনাকে আপনার ডিভাইসের উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন ধরনের টাস্ক সম্পন্ন করতে দেওয়া হবে। এসব টাস্ক গুলো সঠিকভাবে সম্পন্ন করার পর আপনার একাউন্টে নির্দিষ্ট পরিমাণ সাতোশি রেওয়ার্ড দেওয়া হবে। অফারওয়ালে গেম ডাউনলোড করা, বিভিন্ন অ্যাপস ইনস্টল করা, কুইজে অংশগ্রহণ করা, প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার মতো টাস্ক গুলো থাকে। অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন দিয়ে এসব টাস্ক খুব সহজেই সমাধান করতে পারবেন।
    • Faucet: FaucetPay থেকে ইনকাম করার অন্যতম একটি উপায় হচ্ছে Faucet। আমি ইতিমধ্যে Faucet নিয়ে আলোচনা করেছি। FaucetPay এর অসংখ্য Faucet সাইট রয়েছে যেগুলো থেকে আপনি বিটকয়েন, লাইটকয়েন, ডোজকয়েন, ইথারিয়াম, সহ প্রায় সকল ধরনের ক্রিপ্টোকারেন্সি ইনকাম করতে পারবেন।
    • গেমস: FaucetPay এর ওয়েবসাইটে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের গেমস যেগুলোতে অংশগ্রহণ করার জন্য আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমান ক্রিপ্টোকারেন্সি খরচ করতে হবে।  আপনি যদি গেম জিততে পারেন তাহলে আপনার একাউন্টে রেওয়ার্ড যুক্ত হবে।
  • থার্ড পার্টি ওয়েবসাইটঃ অনেক থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট রয়েছে যারা FaucetPay এর মাধ্যমে পেমেন্ট করে থাকে। মূলত FaucetPay এর নিজস্ব আইনে সিস্টেমের তুলনায় এ সকল ওয়েবসাইটগুলো থেকেই আপনি কিছুটা ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন। FaucetPay তে পেমেন্ট করে এরকম দুইটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইট সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো।
    • adBTC: adBTC হলো একটি ট্রাস্টেড পিটিসি ওয়েবসাইট। এটি FaucetPay এর শীর্ষস্থানীয় ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে একটি। এই ওয়েবসাইটটি থেকে শুধুমাত্র ১০০০ সাতোশি ইনকাম করেই তা আপনি আপনার FaucetPay একাউন্টে উইথড্র করতে পারবেন। adBTC তে একাউন্ট খোলার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন
    • CoinPayU: এড দেখে ইনকাম করার জন্য আরেকটি জনপ্রিয় এবং  ট্রাস্টেড ওয়েবসাইট হলো CoinPayU। এই সাইটে ইনকাম করার জন্য বিভিন্ন  অপশনস রয়েছে। তাছাড়া, এই সাইটটি থেকে আপনি প্রতিমাসে ৫০ থেকে ৫০০ সাতোশি পর্যন্ত নিশ্চিত রেওয়ার্ড পাবেন।এই ওয়েবসাইটটি থেকেও শুধুমাত্র ১০০০ সাতোশি ইনকাম করেই তা আপনি আপনার FaucetPay একাউন্টে উইথড্র করতে পারবেন। CoinPayU তে একাউন্ট খোলার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন


FaucetPay থেকে বিকাশে টাকা আনার উপায়?

আপনি FaucetPay থেকে সরাসরি বিকাশে টাকা আনতে পারবেন না। প্রথমে FaucetPay থেকে আপনার কয়েনবেজ ওয়ালেটে টাকা আনতে হবে। তারপর ডলার এক্সচেঞ্জ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কয়েনবেজ থেকে বিকাশে টাকা আনতে পারবেন। এখানে আপনাদের একটা গুরুত্বপূর্ণ ট্রিকস বলে দিই। FaucetPay থেকে কয়েনবেসে বিটকয়েন উইথড্র করতে গেলে আপনাকে প্রায় ৩০ টাকার মতো ফি প্রদান করতে হবে যেটি কিনা অনেকটাই বেশি। তাই FaucetPay থেকে কয়েনবেজে বিটকয়েন উইথড্রো দেওয়ার পূর্বে বিটকয়েনকে লাইটকয়েন এ কনভার্ট করে নিবেন। লাইটকয়েন এর উইথড্রো ফি মাত্র ১ টাকার মতো।


FaucetPay পেমেন্ট প্রুফ (Payment Proof):

আমি বেশ কয়েকবার FaucetPay থেকে আমার কয়েনবেজ ওয়ালেটে উইথড্র দিয়েছি। নিচে তার একটি স্ক্রিনশট দিলাম।


Payment Proof
FaucetPay Payment Proof

আরো পড়ুনঃ  অ্যান্ড্রয়েড দিয়ে কিভাবে সেভ থাকা ওয়াইফাই এর পাসওয়ার্ড দেখবেন

আশা করি আজকের আর্টিকেলটি থেকে আপনি FaucetPay সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন এবং কিভাবে FaucetPay থেকে ইনকাম করবেন এবং সেই টাকা বিকাশে আনবেন তা সম্পর্কে ধারণা পেয়েছেন। FaucetPay সম্পর্কে আপনাদের আরো কিছু জানার থাকলে নিচের কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট করতে পারেন। আমাদের টপিকগুলো ভালো থাকলে আপনার ফ্রেন্ডদের সাথে অবশ্যই শেয়ার করবেন এবং আমাদের ব্লগটি নিয়মিত ভিজিট করবেন।

1 Comments

  1. This comment has been removed by a blog administrator.

    ReplyDelete
Post a Comment
Previous Post Next Post