হ্যান্ডস অন রিভিউ: Lenovo Tab M10 HD (2nd Gen)

বর্তমানে দেশের বাজারে ২৯ হাজার টাকার আশেপাশে পাওয়া যাচ্ছে Lenovo Tab M10 HD-এর 4/64 ভ্যারিয়েন্ট। ট্যাবটিতে থাকছে 10.1″ এর একটি HD+ রেজ্যুলেশনের ডিসপ্লে। প্রসেসর হিসেবে থাকছে Helio P22T। সামনে 5 MP ক্যামেরা ও পেছনে 8 MP ক্যামেরাযুক্ত মেটাল বিল্ট এই ট্যাবটিতে থাকছে সিম কার্ড সমর্থন।

এই লেখাতে ট্যাবটি নিয়ে আমার অভিমত তুলে ধরছি। তার আগে বলে নিই যে, এটি একটি হ্যান্ডস অন রিভিউ, তবে ট্যাবটি খুব বেশি সময়ের জন্য কিংবা ডেইলি ড্রাইভার হিসেবে আমি ব্যবহার করিনি, এবং পুরো লেখার সময়ে ট্যাবটি আমার কাছেshorts ছিলো না- যেকারণে কিছু সূক্ষ্মতর বিষয় এই রিভিউতে আসবে না।

এক্সটেরিয়র থেকে শুরু করি। Lenovo Tab M10 HD মেটাল বিল্ট, যা ট্যাবটিকে শাইনি ও প্রিমিয়াম লুক দিয়েছে। ট্যাবটির ডানদিকে থাকছে পাওয়ার ও ভলিউম বাটন এবং কার্ড ট্রে। বাম দিকে থাকছে POGO পিন, যেটা সম্ভবত কীবোর্ড যুক্ত করার জন্য। ওপরে ও নিচে থাকছে ডুয়াল স্পিকার। সাথে ওপরের দিকে মাইক্রোফোন পোর্ট ও নিচের দিকে চার্জিং পোর্ট থাকছে। ডিজাইন ও বিল্ড কোয়ালিটির দিক থেকে আমার কাছে ট্যাবটি আকর্ষণীয় লেগেছে।

 

যেহেতু এটা একটা ট্যাব, অবশ্যই সাধারণ স্মার্টফোন থেকে এর মূল পার্থক্যকারী বিষয় হলো এর ডিসপ্লে। ট্যাবটিতে ডিসপ্লে সেকশনে থাকছে 10.1″ এর 1280*800 রেজ্যুলেশনের IPS LCD প্যানেল, পিক্সেল ডেনসিটি 150 ppi এর আশেপাশে। পার্সোনালি, বড় সাইজের কারণে হ্যান্ডহেল্ড ডিভাইস হিসেবে কিছুটা আনকমফোর্টেবল ছিলো আমার কাছে- তবে যারা বড় ডিভাইস-ই চাইছেন, এটা তো তাদের জন্যই।

ডিসপ্লে এক্সপ্রেরিয়েন্স বললে এমনিতে আমি রেজ্যুলেশন নিয়ে ততটা খুঁতখুতে না, যেকারণে 150 ppi নিয়ে বিশেষ সমস্যা হওয়ার কথা ছিলো না আমার, কিন্তু কোন কারণে এখানে বিভিন্ন আইকনস ও থাম্বনেইল বেশ ব্লারি দেখায়, যেটা চোখ এড়িয়ে যাওয়া কঠিন। লো রেজ্যুলেশনের এর মূল কারণ বলে আমার কাছে মনে হয়নি, কেননা বিশেষভাবে অ্যাপ আইকনস ও কিছু থাম্বনেইলসে এমনটা দেখেছি, সর্বত্র নয়। সফটওয়্যার অপ্টিমাইজেশন সংশ্লিষ্ট কোন কারণ থাকতে পারে।

ব্রাইটনেস 400 nits, যেটা ডিসেন্ট। বেশিরভাগ সিচুয়েশনে ব্রাইটনেস নিয়ে সমস্যা হবে না, তবে স্বাভাবিকভাবেই সরাসরি দিনের আলোতে একটু অসুবিধা হবে। ভিউ অ্যাঙ্গেল বা কালার নিয়ে কোন ইস্যু নেই, একটি স্ট্যান্ডার্ড IPS ডিসপ্লে থেকে যেমনটা এক্সপেক্ট করা যায়, তেমনটাই।

হার্ডওয়্যারের দিক থেকে দাম অনুপাতে খুব ভালো কিছু অফার করছে না Lenovo Tab M10 HD। এখানে 4 GB র‌্যামের সাথে 64 GB eMMC 5.1 স্টোরেজ থাকছে, যা ঠিক ছিলো- কিন্তু এর চিপসেট ততটা শক্তিশালী নয়। Helio P22T চিপসেট ব্যবহার হয়েছে এতে- যেটা মূলত Helio P35-এর ট্যাব সংস্করণ। 2.3 GHz সর্বোচ্চ ক্লকস্পিডের Cortex A53 বেজড অক্টাকোর প্রসেসরের সাথে থাকছে PowerVR GE8320 GPU।

তবে আমার কাছে তার থেকে হতাশাজনক ছিলো ট্যাবটির সফটওয়্যার। শুরুতে Android 10 নিয়ে বাজারে আসা ট্যাবটিতে বর্তমানে Android 11 পর্যন্ত পাওয়া যাবে। প্রশংসা করার মত বেশ কিছু দিক আছে সফটওয়্যারে- সফটওয়্যার বেশ ক্লিন, হাবিজাবি দিয়ে ব্লটেড না একদমই, ইউআইতে এডভার্টাইজমেন্ট নেই ইত্যাদি।

আসলে এর সফটওয়্যার মূলত অলমোস্ট স্টক অ্যান্ড্রয়েড, যেখানে ট্যাবের জন্য তেমন কোন স্পেশালিটি নেই। কিন্তু বড় স্ক্রিনের জন্য এর অপ্টিমাইজেশনও যথাযথ নয়, অ্যাপ ওভারভিউ বা অ্যাপ সুইচিং এনিমেশনগুলো সঠিকভাবে অপ্টিমাইজড না, ব্লারিনেসের ব্যাপারটা তো আগেই বলা হয়েছে।

খুব স্পেসিফিকলি ব্যাপারটা বোঝানো কঠিন- কিন্তু যখন এর এক-তৃতীয়াংশ দামের Galaxy Tab A 8.0 চালিয়ে দেখেছি, তখন এর এক্সপ্রেরিয়েন্স আমার কাছে ট্যাবের মতই লেগেছে, অন্যদিকে Lenovo Tab M10 HD-র এক্সপ্রেরিয়েন্স মনে হয়েছে একটা enlarged অ্যান্ড্রয়েড, যা কিনা আবার প্রোপারলি অপ্টিমাইজড না।

সফটওয়্যার আর হার্ডওয়্যারের এই কম্বিনেশন মিলে এক্সপ্রেরিয়েন্স ঠিক ‘মাখন’ ছিলো না। হ্যা, পিডিএফ পড়া, ভিডিও দেখা, নেট ব্রাউজিং, লেখালেখি এরকম বেসিক ইউসেজে খুব অসুবিধা হবে- এমন না। তবে সহজভাবে বললে ১০-১৫ হাজার টাকার একটা ডিভাইস থেকে আপনি যে এক্সপ্রেরিয়েন্স এক্সপেক্ট করেন, ৩০ হাজার থেকে কিন্তু আপনি সেম এক্সপ্রেরিয়েন্স চাইবেন না। এবং এদিক থেকে Lenovo M10 HD আমাকে স্যাটিস্ফাই করতে পারেনি।

অন্যদিকে আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইনিং বা ইনটেন্সিভ ইউসেজের চিন্তা করেন- Lenovo M10 HD অ্যাপ্রোপিয়েট অপশন না। এখানে কোন স্টাইলাস সাপোর্ট থাকছে না (এমনি ক্যাপাসিটিভ স্টাইলাস ইউজ করা যাবে, যেটা ড্রইংয়ের মত সূক্ষ্ম কাজের জন্য যথেষ্ট না)। Krita ইন্সটল করে দেখেছিলাম, এটা রান করেছে, তবে বেশ ভালো ডিলে ছিলো।

ক্যামেরা নিয়ে বলতে গেলে এর 8 MP রেয়ার ক্যামেরা কিংবা 5 MP ফ্রন্ট ক্যামেরা কোনটাই ঠিক মহাকাব্য লিখে ফেলার মত কিছু না। যেহেতু সাধারণভাবে ফটোগ্রাফি ডিভাইস হিসেবে ট্যাব প্রচলিত না, সেহেতু দরকারগুলো পূরণের জন্য এর ক্যামেরা যথেষ্ট হবে আশা করি। উপযুক্ত পরিবেশে ছবি মোটামুটি ভালোই আসে। ক্যামেরা সফটওয়্যারটি বেশ মিনিমাল- ফিচারও সীমিত।

 

 

 

 

 

সাউন্ড কোয়ালিটির দিক থেকে বেশ চমৎকার ছিলো এটা। Dolby Atmos টিউনড ডুয়াল স্টেরিও স্পিকার বেশ ক্লিয়ার ও লাউড সাউন্ড প্রডিউস করে।

ট্যাবটিতে সিম সমর্থন থাকছে, একটি ন্যানো সিম ব্যবহার করা যাবে। থাকছে মাইক্রো এসডি কার্ড সমর্থন।সেন্সর সেকশনে প্রক্সিমিটি ও এক্সেলেরোমিটারের মত বেসিক সেন্সরগুলো থাকছে। জাইরো কিংবা কম্পাস সেন্সর নেই। ট্যাবটিতে নেই কোন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

5000 mAh ব্যাটারী থাকছে এখানে। বড় ডিসপ্লে হিসেবে ব্যাটারী তত বেশি না হলেও ব্যাকআপ বেশ ভালো আসলে। তবে চার্জিং মাত্র 10 W এর।

Lenovo Tab M10 HD একটি ফ্যামিলি-ফার্স্ট ট্যাব হিসেবে তৈরি করা হয়েছে। সিম সমর্থন, ব্লট-ফ্রি সফটওয়্যার, বড় ডিসপ্লে, ভালো সাউন্ড কোয়ালিটি, বাচ্চাদের জন্য কিছু ফিচার্সসহ পরিবারের জন্য একটি ট্যাব হিসেবে যখন এটা চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম- আমার কাছে মনে হয়েছে হার্ডওয়্যারের দিক থেকে এর দামকে এটি জাস্টিফাই করছে না এবং সফটওয়্যারের দিক থেকেও এর পূর্ণ পটেনশিয়াল দিতে পারছে না।

বাস্তবতা হলো স্মার্টফোন মার্কেটের মত বৈচিত্র ট্যাবের মার্কেটে নেই, এবং এখানে আদর্শ কিছু খুঁজে পাওয়া বেশ কঠিন। এরপরও আমার কাছে মনে হয়েছে সম্ভবত বেশিরভাগ ইউজার Lenovo Tab M10 HD এর থেকে বেটার কিছু তাদের জন্য খুঁজে নিতে পারবেন। সামগ্রিকভাবে, রিয়েল লাইফে ট্যাবটি আমার কাছে এক্সপেক্টেশন থেকে কম দিতে পেরেছে বলে আমার মনে হয়েছে।

আরো দেখুন: কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাম্প্রতিক অগ্রগতি ও আমার ভাবনা

একটি নিয়নবাতি পরিবেশনা

The post হ্যান্ডস অন রিভিউ: Lenovo Tab M10 HD (2nd Gen) appeared first on Trickbd.com.

Al Sayeed

Hi, I am Al Sayeed. I live in Bangladesh. I like Blogging. I am a student of Computer Science & Technology.

*

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post